ভ্রমণের সময় নিজেকে যেভাবে সুন্দর ও সতেজ রাখবেন

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
3

ভ্রমণ সর্বদা আনন্দের। কিন্তু এই আনন্দের ভ্রমণ অনেকটা ম্লান হয়ে যায় যখন চেহারার অবস্থা খারাপ হয়ে যায়। বাস, প্লেন কিংবা ট্রেন যে মাধ্যমেই ভ্রমণ করা হোক না কেন প্রায় অধিকাংশ মানুষের চেহারা, চুলের অবস্থা খুব শোচনীয় হয়ে যায়। বিশেষ করে মেয়েদের এই ধরনের সমস্যায় বেশি পড়তে হয়। খুব দ্রুত তাদের চেহারায় ক্লান্তির ছাপ ফুটে ওঠে এবং দেখতেও অগোছালো লাগে।

তবে ভ্রমণের সময় খুব হালকা মেকআপ করে, সুতি কাপড় পরলে অনেকটা অস্বস্তি দূর করা যায়, ত্বক সতেজ রাখা যায়। তাছাড়া দীর্ঘ সময় ধরে বাস, ট্রেন কিংবা বিমানে ভ্রমণ করার পর গন্তব্যস্থলে পৌঁছানোর পূর্বে একটু ফ্রেশ হয়ে নেওয়া ভালো। এতে চেহারা থেকে ক্লান্তির ছাপ কিছুটা হলেও দূর হয়। জেনে নিন ভ্রমণের সময় নিজেকে যেভাবে সুন্দর ও আকর্ষণীয় রাখবেন তা সম্পর্কে।

আরামদায়ক পোশাক পরিধান

ভ্রমণের সময় আরামদায়ক পোশাক পরিধান করলে শান্তিতে ঘোরাফেরা ও চলাফেরা করা যায়। তাই ভারী ও জাঁকজমক পোশাক না পরে সুতি ও আরামদায়ক পোশাক পরিধান করুন।

ভাঁজমুক্ত ও হালকা পোশাক নির্বাচন

ভ্রমণ সাধারণত দীর্ঘ সময়ের জন্য হয়। অনেকে ভ্রমণে গিয়ে পারিপার্শ্বিক নানা কারণে অসুস্থ হয়ে যায়। তাই ভ্রমণের সময় ভাঁজমুক্ত, হালকা ও আরামদায়ক পোশাক পরিধান করুন। কারণ হালকা পোশাক পরিধান করলে নিঃশ্বাস নিতে আপনার কষ্ট হবে না, হাঁটাহাঁটি করতে সমস্যা হবে না। সুতি পোশাক ঘাম শুষে নেয় দ্রুত। সুতি পোশাক পরলে অস্বস্তি লাগে না।

Photo: Pinterest

তাই ভ্রমণের পোশাক হিসেবে সুতি পোশাককে নির্বাচন করুন। তাছাড়া সুতি পোশাকের মধ্যে দিয়ে আলো বাতাস চলাচল করতে পারে। তবে আপনি যদি মনে করেন সিনথেটিক, জর্জেট কাপড়ের পোশাক পরে স্বস্তি পাবেন তাহলে পরতে পারেন। ভ্রমণের সময় সিনথেটিক, জর্জেট, লিনেন কাপড়ের পোশাক এড়িয়ে যাওয়া উত্তম। কারণ লিলেন কাপড় খুব সহজে ভাঁজ হয়ে যায়, কুঁচকে যায়।

পছন্দের পোশাক

ভ্রমণের আনন্দকে উপভোগ করতে অবশ্যই আপনার পছন্দের পোশাক পরিধান করুন। যেমন মেয়ে হলে শার্ট, টপস, লেগিংস, জেগিংস, প্যান্ট পরতে পারেন। তবে আপনার যদি স্কার্ট কিংবা থ্রিপিস ভালো লাগে তাহলে তা পরিধান করুন। কারণ পছন্দের পোশাক আপনাকে অনেক আত্ববিশ্বাসী করবে এবং প্রাণবন্ত রাখবে।

Photo: outfittrends.com

আর ছেলেদের জন্য প্যান্ট, জ্যাকেট, পোলো টি-শার্ট, শার্ট ইত্যাদি উপযুক্ত পোশাক। শীতকালে ভ্রমণে গেলে মেয়ে ও ছেলে উভয়ের উচিত গরম জামাকাপড় সঙ্গে রাখা।

পোশাকের সাথে মিল রেখে আনুষঙ্গিক উপকরণ

পোশাকের সাথে মিল রেখে, সাজসজ্জার সাথে মিল রেখে অবশ্যই আনুষঙ্গিক উপকরণ ব্যবহার করুন। যেমন আপনি একটি হাত ব্যাগ, সানগ্লাস কিংবা টুপি ব্যবহার করতে পারেন। ছেলেরা চাইলে মাফলার কিংবা প্রয়োজনীয় ও পছন্দের সামগ্রী সাথে রাখতে পারেন। তাছাড়া মেয়েরা পোশাকের সাথে মিল রেখে গহনা, ব্রেসলেট পরতে পারেন।

Photo: buyhathats.com

আনুষঙ্গিক উপকরণগুলো আপনার ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করবে এবং অন্যদের কাছে আপনাকে গ্রহণযোগ্য করে তুলবে। তাছাড়া আপনাকে দেখে মানুষ আপনার রুচিবোধ সম্পর্কেও ধারণা লাভ করবে। তাই আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের পরিচয় দিতে আনুষঙ্গিক উপকরণগুলো সাথে রাখুন।

আরামদায়ক জুতো

অনেকে হিল জুতো পরতে ভালবাসে। তবে ভ্রমণের সময় হিল জুতো মানানসই নয়। কারণ হিল কিংবা উঁচু জুতো পরে আরামদায়কভাবে হাঁটা যায় না, অল্প সময়ের মধ্যেই ক্লান্ত হয়ে যেতে হয়। আবার অনেকে সদ্য কেনা নতুন জুতো পরে ভ্রমণ করে। তা ঠিক নয়। সদ্য কেনা নতুন জুতো পরলে অনেক সময় পায়ে আঘাত লাগে, ফোসকা পড়ে। তাই ভ্রমণে নতুন জুতা না পরা ভালো।

Photo: pedshoes.com

একেবারে সাধারণ, হালকা কাজ, ভালো ব্র্যান্ডের জুতো পরুন। খেয়াল রাখবেন অনেক দিনের পুরনো জুতো যেন না পরেন। কারণ অনেক দিনের পুরনো জুতো যেকোনো সময় ছিঁড়ে যেতে পারে। তাহলে আপনি বিপদে পড়বেন। তাই সদ্য কেনা নতুন জুতো ও অনেক দিনের পুরনো জুতো ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত নয়। তবে কেউ যদি জুতোর সাথে মোজা পরতে পছন্দ করেন তা পরতে পারেন।

মেকআপ ও চুলের স্টাইল

শুধু আরামদায়ক পোশাক ও জুতো নির্বাচন করলেই আপনার কাজ পুরোপুরি শেষ হবে না। আপনাকে মেকআপ ও চুলের স্টাইল নিয়েও ভাবতে হবে। আকর্ষণীয় চুলের স্টাইল ও সুন্দর, ছিমছাম মেকআপ আপনাকে সুন্দর করে তুলবে।

ত্বককে সতেজ রাখুন

যেকোনো ঋতুতে ভ্রমণের সময় প্রথমত ত্বককে মসৃণ ও সতেজ রাখুন। আর এর জন্য মুখে লোশন বা আপনার ত্বকের সাথে মানানসই ক্রিম ব্যবহার করুন। মনে রাখবেন মেকআপ মানে ভারী সাজসজ্জা নয়।

Photo: travelfashiongirl.com

খুব সাধারণ থাকার মাধ্যমেও গর্জিয়াস হওয়া যায়। নিজেকে প্রাণবন্ত ও সুন্দর করে উপস্থাপন করা যায়। তাছাড়া ব্যাগে পারফিউম, ক্রিম, চিরুনি, ফেসওয়াশ, ফেস পাউডার রাখুন যেন প্রয়োজন হলে ব্যবহার করা যায়।

ছিমছাম চুলের স্টাইল

ভ্রমণের সময় চুল রাখুন ছিমছাম। অনেক সময় ধরে চুল কার্ল করে, খোঁপায় ফুল দিয়ে কিংবা চুল স্ট্রেইট করে ভ্রমণে যাওয়ার দরকার নেই।

Photo: chillfeel.com

তার চেয়ে বরং চুলে হালকা স্টাইল করুন। আপনি যেভাবে স্বস্তি ও আরামবোধ করেন সেভাবে থাকুন।

আরো কিছু পরামর্শ

ভ্রমণের সময় নিজেকে আত্মবিশ্বাসী রাখুন। কিছু পরামর্শ মেনে চললে ও সতর্ক থাকলে ভ্রমণেও নিজেকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় রাখতে পারবেন।

বিমানে বা বাসে ঘুমান

আপনার যাত্রাপথ যদি অধিক সময়ের হয় তাহলে বিমানে বা বাসে একটু ঘুমিয়ে নিন। এতে আপনার ত্বক ভালো থাকবে এবং মন প্রাণবন্ত থাকবে।

হাইড্রেট থাকুন

বিমানে ভ্রমণের সময় হাইড্রেট থাকা খুব জরুরী। প্রতি এক ঘণ্টা পর পর এক গ্লাস পানি পান করুন।

Photo: Twip

বাসে ভ্রমণ করলেও হাইড্রেট থাকুন। এতে আপনি সতেজ ও সুন্দর থাকবেন। সহজে ক্লান্ত হবেন না।

স্বাস্থ্যকর খাবার খান

ভ্রমণের সময় ফাস্টফুড, জাঙ্কফুড খাওয়া খুব সহজ। তবে এগুলো খাওয়া উচিত নয়। ভ্রমণে গেলে সাথে ফলমূল, স্যান্ডউইচ কিংবা হালকা খাবার রাখতে পারেন, যেন ক্ষুধা লাগলে খেতে পারেন। তাছাড়া সালাদ রাখতে পারেন।

ফিচার ইমেজ সোর্সঃ buyhathats.com

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
3
Booking.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *