নেদারল্যান্ডের যত বিখ্যাত মিউজিক ফেস্টিভ্যাল

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry

শুধুমাত্র নেদারল্যান্ডেই সারা বছর ধরে আপনি মেতে থাকতে পারবেন সংগীতের তালে। নেদারল্যান্ড যেন প্রতিটা সময় সংগীতের উজ্জ্বল বর্ণে বর্ণিত হয়ে থাকে। নেদারল্যান্ডের ভালো এবং দ্রুতগতি সম্পন্ন রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা দেশের এক প্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আপনাকে নিয়ে যাবে। সংগীতের ফেস্টিভেলগুলোতে পৌঁছাতে চাইলে পৌঁছানো যাবে খুব সহজে। রেটার্ড্যামের রক মিউজিক থেকে শুরু করে হেগের হিপ হপ মিউজিক সব ধরনের ফেস্টিভেলের বর্ণনা পাওয়া যাবে এখানে।

নেদারল্যান্ডে সারা বছর ধরে বেশ কিছু সঙ্গীত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়, যেগুলো যেকোনো সংগীত প্রেমীদের কাছে অত্যন্ত উৎকৃষ্টমানের উদাহরণ হিসেবে থাকতে পারে। সংগীতের উৎসবে স্বর্গরাজ্য নেদারল্যান্ডে ঘুরতে আসলে এই সংগীত উৎসবগুলো একবার হলেও দেখে যাওয়া উচিত। নিচে আমি বেশ কিছু সঙ্গীত উৎসব সম্পর্কে ছোটখাটো বর্ণনা দেওয়ার চেষ্টা করছি। আশা করি এরপর নেদারল্যান্ডে ঘুরতে গেলে যেকোনো মাসেই কেউ একজন কোনো একটি সংগীত উৎসব হাতের মাথায় পেয়ে যেতে পারেন।

সোনাটা ফেস্টিভেল

সোনাটা ফেস্টিভেল, উট্রেস্ট, মে

উট্রেস্ট একটি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় যেটি কিনা সংগীত উৎসব উদযাপনের জন্য একটি প্রাকৃতিক আবাসস্থলের মতোই। বসন্তের দিনগুলোতে সব সময় চলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের এলাকাটিতে গান বাজনা। জে মিলস, লেন বাকি, জন তালাভোর পাশাপাশি অনেক নতুন নতুন সংগীত শিল্পীরা এখানে গান বাজনা করে। তাই সংগীতের মূর্ছনায় এই এলাকাটি মুখর হয়ে থাকে পুরো মে মাস জুড়ে।

পার্ক পপ ফেস্টিভেল

পার্ক পপ ফেস্টিভেল, হেগ, জুন

হেগ শহরটি মূলত রাজনীতিবিদ এবং আইনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বিখ্যাত। কিন্তু গ্রীষ্মের সময় এখানে উদযাপন করা হয় বেশ কিছু মিউজিক ফেস্টিভেল। শুধুমাত্র জুন মাসের অল্প কয়েকটা দিনেই এখানে প্রায় দুই লক্ষ দর্শনার্থী এসে জমা হয়। তারা পান করে, গান বাজনা এবং আনন্দ করে। ১৯৮১ সাল থেকে পার্ক পপ আন্তর্জাতিকভাবে চলে আসছে। এখান থেকে প্রতি বছরই নতুন নতুন প্রতিভাবান সংগীতের জগতে প্রবেশ করেন।

দ্য ফ্লাইং ডাচ

দ্য ফ্লাইং ডাচ, আমস্টারডাম, জুন

আমস্টারডামে জুন মাস হয়ে থাকে অত্যন্ত বর্ণিল সংগীতের তালে তালে। তিনটি বিশাল ভেন্যুতে ডিজে পার্টি হয়। হাজার হাজার দর্শনার্থী ভিড় করে এই পার্টিতে। বিখ্যাত বিখ্যাত সব ডিজেরা পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে এসে এই ফ্লাইং ডাচে অংশ নেন। ২০১৮ সালে দি ফ্লাইং ডাচম্যান এক লক্ষ ভক্তরা একসাথে উপভোগ করেছিলেন।

বেস্ট কিপ সেক্রেট ফেস্টিভেল, হেলভার ব্রেক, জুন

হেলভার ব্রেকে জুন মাসে উদযাপিত হয় রঙিন আরেকটি সংগীত উৎসব। যেটির নাম দেয়া হয়েছে বেস্ট কিপ সিক্রেট। এখানে সারা পৃথিবীর সঙ্গীত শিল্পীরা এসে সংগীত পরিবেশন করে থাকেন। জ্বালানো হয় অগ্নিমশাল, অংকন করা হয় রংবেরঙের গ্রাফিতি এবং এলইডির উজ্জ্বল আলোয় রঙিন হয়ে থাকে সম্পূর্ণ উৎসবে প্রান্তরটি।

বেস্ট কিপ সেক্রেট ফেস্টিভেল

এছাড়া এই উৎসবে হেলভার ব্রিকের খাদ্যাভাস এবং নতুন নতুন খাদ্যের স্বাদ নেওয়ার সুযোগ থাকে। এর পাশেই রয়েছে ব্রিকস বারগেন নামে একটি ক্যাম্প সাইট। যেখানে সংগীত অনুষ্ঠানের পর ক্যাম্প করেও থাকা যায়। রং এবং আলোকচ্ছটা যাদের প্রিয় তাদের জন্য এই উৎসবটি খুবই উপভোগ্য হবে বলে আমার ধারণা। এছাড়া হিপ হপ এবং ডিজে সঙ্গীত যাদের পছন্দের তালিকায় আছে তাদের জন্য এই অনুষ্ঠানটি অত্যন্ত উপভোগ্য হবে।

নর্থ সি জ্যাজ ফেস্টিভাল, রটর্ড্রাম, জুলাই

রটর্ড্রামের আরেকটি বিখ্যাত সঙ্গীত উৎসব আয়োজিত হয় ১৯৭৬ সালের পর থেকে। আধুনিক সঙ্গীতের সঙ্গে মিশ্রণ করে এই উৎসবের আয়োজন করা হয়ে আসছে। এখানে প্রায় ১৫টি আলাদা স্টেজের উপর ১৫০ জন পারফর্মার পারফরম্যান্স করে থাকেন মাত্র ৩ দিনে।

নর্থ সি জ্যাজ ফেস্টিভাল

এই উৎসবটি মূলত সবার জন্য করা হয়। আবালবৃদ্ধবনিতা সকলেই এ অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে পারে। আর সব বয়সের লোকেরাই এই অনুষ্ঠানে পারফর্ম করে থাকে। এই কারণেই এই উৎসবটি বেশ খ্যাতি অর্জন করেছে নেদারল্যান্ডের মানুষদের কাছে।

উইশ আউটডোর, নর্থ বারব্যান্ড, জুলাই

তিন দিনের ছুটির মধ্যে এই অনুষ্ঠানটির আয়োজন করা হয় খুবই অ্যাডভান্স তরিকায়। এটি মূলত হল্যান্ডে আয়োজিত হয়ে থাকলেও এখানকার ট্রেন এবং প্লেনের যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই ভালো। তাই কয়েক ঘণ্টার মাঝেই এখানে পৌঁছে যাওয়া যায়। এটি মূলত ছুটির দিন, যেমন শুক্রবার, শনিবার এবং রবিবার এই দিনগুলোতে আয়োজন করা হয়। তাই সপরিবারে এসে এই সংগীত উৎসব উপভোগ করা যায়।

উইশ আউটডোর

যারা নতুন নতুন এখানে আসেন অনুষ্ঠান শেষে তাদের ভাষা প্রকাশের ক্ষমতা নাকি হারিয়ে যায়। অনেকেই এসে সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানটি উপভোগ করে থাকে। শোনা যায়, এখানকার সংগীতে মুগ্ধ হয়ে পৃথিবীর অনেক বিখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ এই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। তাই আপনি যদি সঙ্গীতপ্রেমী হয়ে থাকেন তবে অবশ্যই এই উৎসবটি একবার দেখার চেষ্টা করবেন।

জ্বারটে ক্রস, লিস্টেনওর্দ, জুলাই

মোটরক্রস রেসিং উৎসবের সাথে সাথে এই উৎসবটি পালন করা হয় নেদারল্যান্ডে খুবই গুরুত্বের সাথে। বর্তমান সারা পৃথিবী থেকে প্রায় দুই লক্ষ কুড়ি হাজার ভ্রমণ পিপাসু এই উৎসবে যোগদান করে। বিখ্যাত সব মোটর বাইক এবং স্ট্যান্ট পরিদর্শকরা এখানে আসেন মোটরবাইক স্ট্যান্ট এবং সংগীতের অপরূপ মহিমার সাথে জেগে উঠতে। হাজার হাজার দর্শনার্থীর ভিড় এবং রংছটার জন্য এই এলাকাটি হয়ে থাকে সম্পূর্ণ রঙিন।

জ্বারটে ক্রস

শুধুমাত্র সঙ্গীত নয় নেদারল্যান্ডের পোশাক-আশাক, খাবার দাবার তাদের মটরবাইক রেসিংয়ের যে সুপ্রাচীন ইতিহাস, সে সম্পর্কেও ধারণা পাওয়া যায় এখান থেকে। এছাড়া এই উৎসব উপলক্ষে আশেপাশের হোটেল এবং রেস্টুরেন্ট কোম্পানিগুলো বিভিন্ন রকম ছাড় এবং সুযোগ দিয়ে থাকে দর্শনার্থীদের জন্য। তাই নেদারল্যান্ডে গেলে এবং সেটি যদি হয় জুলাই মাসে তাহলে কোনোভাবেই এই অনুষ্ঠানটি উপভোগ করতে ভুলবেন না।

Like
Like Love Haha Wow Sad Angry
Booking.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *